শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৪৯ পূর্বাহ্ন

ঈদের ছুটিতে এবার বেড়ানোর তালিকায় সেরা পছন্দ ছিল ‘পদ্মা সেতু’

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট সময় শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০২২
ঈদের ছুটিতে এবার বেড়ানোর তালিকায় সেরা পছন্দ ছিল ‘পদ্মা সেতু’

ঈদুল আজহার ছুটিতে এবার সবশ্রেণির ভ্রমণপিপাসুর কাছে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিল পদ্মা সেতু। অন্যান্য দর্শনীয় স্থানের চেয়ে এগিয়ে ছিল স্বপ্নের এই সেতু। ঈদে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন অঙ্গণের তারকারাও পদ্মা সেতু দেখতে গেছেন। সব মিলিয়ে ঈদ আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিল পদ্মা সেতু। খবর ডয়চে ভেলের।

পদ্মা সেতুতে গাড়ি থামিয়ে ছবি তোলাতে নিষেধাজ্ঞা থাকায় ভ্রমণপিপাসুদের কেউ কেউ গাড়ি থেকে কিংবা নৌকা ভাড়া করে সেতুর কাছাকাছি গিয়ে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেছিলেন।

ট্রলারে পদ্মা সেতু দর্শন
মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট থেকে ট্রলার ভাড়া করে পদ্মা সেতু দেখতে গেছেন অনেকে। ওপরে তারই ছবি৷ নৌ-ভ্রমণে পদ্মা সেতু কাছ থেকে দেখে উৎফুল্ল সবাই। ট্রলারে জনপ্রতি ভাড়া ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা। পরিবার নিয়ে গেলে ভাড়া ২৫০০ থেকে ৩ হাজার টাকা নেওয়া হচ্ছে। সেতুর কাছে যাত্রীদের নিয়ে আবারও শিমুলিয়া ঘাটে ফিরে আসে ট্রলার।

সহকর্মীরা মিলে নৌকা ভ্রমণ
বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা ঈদের চার দিন পর পদ্মা সেতু দেখার আনন্দে মেতেছিলেন। প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা গাজী রিগ্যান ডয়চে ভেলেকে জানান, শিমুলিয়া ৩ নম্বর ফেরিঘাট থেকে নৌকা ভাড়া করে দিনভর পদ্মায় ঘুরেছেন তারা।

জাহাজে প্রমত্ত পদ্মায়
টাইগার নামের একটি জাহাজে চড়ে পদ্মা সেতু দেখেছেন ট্র্যাভেল ভ্লগার দেলওয়ার আফরান। সেতুর কাছ দিয়ে যাওয়ার সময় জাতীয় পতাকাসহ ছবি তুলেছেন দোহার নবাবগঞ্জ কলেজের এই অনার্স শিক্ষার্থী। তিনি ডয়চে ভেলেকে জানান, ঈদ পুনর্মিলনীর একটি আয়োজন ছিল এই ভ্রমণ।

পূজার আনন্দ
খুলনা জেলার দিঘলিয়া উপজেলার অন্তর্গত গাজীরহাট ইউনিয়নে চিত্রনায়িকা পূজা চেরির গ্রামের বাড়ি। ঈদের চার দিন আগে পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে দারুণ আনন্দিত তিনি। গাড়িতে বসেই কয়েকটি ছবি তুলে ভ্রমণটা স্মরণীয় করে রাখেন জনপ্রিয় এই তারকা।

দৃষ্টিনন্দন পদ্মা
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র পরিচালক তানিম রহমান অংশুর গ্রামের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায়।পদ্মা সেতু দেখতে ও ইলিশ খেতে মাওয়া গিয়েছিলেন তিনি। সেতু পাড়ি দেওয়ার সময় দৃষ্টিনন্দন কিছু ছবি তোলেন এই নির্মাতা।

বাশার পরিবারের বেড়ানো
ঈদের পরদিন পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে ভাঙা গিয়েছিল বাশার পরিবার। তারা প্রায় সবাই অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত। অভিনেতা ফখরুল বাশার মাসুম, অভিনেত্রী মিলি বাশার ও তাদের মেয়ে নাজিবা বাশার। ফখরুল বাশার মাসুম জানান, ঘর থেকে বেরিয়ে ভাঙা গিয়ে আবারও ঢাকায় ফিরে আসতে সব মিলিয়ে তিন ঘণ্টা লেগেছে তাদের। অথচ একসময় যাওয়া-আসার ক্ষেত্রে ফেরিঘাটে অন্তত ছয় ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হতো।

আশরাফুলের সেলফি
ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল ঈদের আগে প্রথমবার পদ্মা সেতু ঘুরে এসেছেন। মাওয়া প্রান্তে চলন্ত অবস্থায় গাড়ির হুড খুলে সেলফি তুলেছেন তিনি।

পুলকিত নাঈম শেখ
জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোহাম্মদ নাঈম শেখের গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর। প্রকৃতির সান্নিধ্যে এবারের ঈদ কাটাতে ৭ জুলাই পদ্মা সেতু পাড়ি দেন তিনি। সেতু ফাঁকা দেখে ক্ষণিকের জন্য থেমে ছবি তোলার লোভ সামলাতে পারেননি বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।

ফুটবলারের আবেগ
জাতীয় ফুটবল দলের ডিফেন্ডার রহমত মিয়ার গ্রাম মাগুরায়। ঈদের দুই দিন পর বাড়ি গিয়েছিলেন তিনি। রহমত মিয়া ডয়চে ভেলেকে জানান, মাত্র দুই ঘণ্টায় মাগুরা পৌঁছেছেন। তার সঙ্গী ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ক্রীড়া চক্রের ফুটবলার সুমন আহমেদ। পদ্মা সেতুতে রহমতের ছবি তুলে দেন তিনি।

দুরন্ত টিভির সাংবাদিক দিগন্ত বাহার ঈদের একদিন পর বন্ধুর গাড়িতে চড়ে লং ড্রাইভে গিয়েছিলেন। উদ্দেশ্য ছিল পদ্মা সেতু দর্শন। বরিশাল লঞ্চঘাটে গিয়ে খাওয়া-দাওয়া সেরে ভোরে ঢাকায় ফিরছিলেন। দুই মিনিটের জন্য থেমে জলে সেতুর ছায়া পড়ার দৃষ্টিনন্দন ছবিটি তুলেছেন তিনি।

চিকিৎসকের আনন্দ
পরিবার ও বন্ধুদের নিয়ে পিরোজপুরে গ্রামের বাড়ি ঘুরতে গিয়েছিলেন ডা. সিদ্ধার্থ মজুমদার। সেতুর ওপর ৩০ সেকেন্ডের জন্য গাড়ি থামিয়ে ছবি না তুলে থাকতে পারেননি তিনি।

পদ্মা সেতু হওয়ায় ১২ বছর পর গ্রামের বাড়িতে
ডিজিটাল কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হৃদিমা খান ১২ বছর পর গ্রামের বাড়িতে কোরবানির ঈদ কাটালেন। গত ৭ জুলাই পদ্মা সেতু পাড়ি দেন তিনি। তখন গাড়ির দরজা খুলে ছবি তোলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘‘আমি পদ্মা সেতুর জন্যই অপেক্ষা করছিলাম। আমার অপেক্ষার প্রহর কাটলো।’’

সপরিবারে বেড়ানো
জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর ঈদের দুই দিন আগে সপরিবারে পদ্মা সেতু ঘুরতে গিয়েছিলেন। তার মতে পদ্মা সেতু-দর্শন ছিল যেন ‘স্বপ্ন দর্শন।’

৯৯৯ টাকায় বিশেষ প্যাকেজ
পদ্মা সেতু এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়ক তথা ঢাকা-ভাঙা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়েতে ৯৯৯ টাকায় ভ্রমণের বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন। আগামী ২২ জুলাই থেকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাসে ভ্রমণ করা যাবে। এজন্য আগেই প্যাকেজ বুকিং দিতে হবে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: