রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
কিশোরগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থাকে ক্রিকেট সামগ্রী উপহার দিয়েছে বিসিবি ২০০১-২০০৮ ছিল বাংলাদেশের জন্য একটি অন্ধকার যুগ: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর উপহারের পাকা বাড়ি পেল ৭০ হাজার গৃহহীন পরিবার পাগলা মসজিদের দানবাক্সে এবার ৫ মাসে সোয়া দুই কোটি টাকা চিনি শিল্পকে বাঁচাতে ১৫ চিনি কলের আখচাষী শ্রমিকদের সভা নাটোরের লালপুরে প্রধানমন্ত্রীর উপহারকৃত ঘর পেল ৩৫ গৃহহীন পরিবার কিশোরগঞ্জে জোরপূর্বক জমি দখল করে ফসল চাষ কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় ৪১ গৃহহীন পরিবারকে জমির দলিল হস্তান্তর পাগলা মসজিদে স্বর্ণালঙ্কারসহ এবার মিলল ২ কোটি ৩৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৫ টাকা কুলিয়ারচরে কৃষকের বহুমুখী উদ্যোগ, সবজি দিয়ে তৈরি করলেন মানচিত্র, পতাকা ও নৌকা

এটা সরাসরি প্রতারণা : শাকিব

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট সময় সোমবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৯১ বার পড়া হয়েছে
সাকিব

বিজয় দিবস উপলক্ষে গত ১৬ ডিসেম্বর ওটিটি প্লাটফর্ম আই-থিয়েটারে মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘নবাব এলএলবি’। ট্রেলার প্রকাশের পর ছবিটি দেখা নিয়ে দর্শদকের মধ্যে তুমুল আগ্রহ তৈরি হলেও ছবি মুক্তি দিয়ে সেই আগ্রহে জল ঢেলে দিয়েছে ছবিটির পরিচালক অনন্য মামুন।

ছবি মুক্তি পর সেটি নিয়ে শুরু হয় তুমুল বিতর্ক। কোনো ঘোষণা ছাড়া পূর্ণদৈর্ঘ্য এই সিনেমাটিকে নিজের ইচ্ছাতেই দুই পার্টে আলাদা করে ফেলেন নির্মাতা। পূর্ণ সিনেমার নামে মুক্তি দেওয়া হয়েছে ছবিটির পার্ট-১। এরইমধ্যে ছবিটি নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ এনেছেন বেশিরভাগ দর্শক। সেই তালিকায় এবার যুক্ত হলেন ছবিটির নায়ক শাকিব খান। তিনি দাবি করলেন, তার সঙ্গেও প্রতারণা করা হয়েছে।

একটি গণমাধ্যমে দেয়া বক্তব্যে এমনই দাবি করেছেন ঢালিউডের এই শীর্ষ নায়ক। সেখানে শাকিব বলেন, ‘এটা সরাসরি প্রতারণা। সিনেমা ধ্বংসের ষড়যন্ত্রও বলা যায়। আমি ভাবতে পারিনি মামুন এমন কাজ করবে। দর্শক ৯৯ টাকা ফি দিয়ে অর্ধেক ছবি দেখবে কেন! তা ছাড়া এটাকে মামুন পার্ট-১ বলে দাবি করছে কীভাবে? আমি তো জানি, কোনোভাবেই এটা পার্ট-১ বা পার্ট-২ না। পুরো একটা সিনেমার অর্ধেক মুক্তি দিয়েছে সে । এটা রীতিমত অন্যায়। এখন দর্শক যদি ভোক্তাধিকারে মামলা করে, মামুনের কোনো অজুহাতই কাজে লাগবে না। তাকে জরিমানা দিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই সিনেমায় অভিনয় করাটাই আমার ভুল হয়েছে। শুরুতে যখন বারবার শিডিউল নিয়ে ঝামেলা করেছিল, তখনই আমার সরে দাঁড়ানো উচিত ছিল। আমাকে গল্প শুনিয়েছে এক রকম, শুটিং করেছে আরেকভাবে। মুক্তির পর দেখা গেল আবার অন্যরকম। যারা আমাকে ফোন করেছেন, প্রত্যেককে বলেছি, এই সিনেমা আমার না। আমার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে।’

পরিচালকের পক্ষ থেকে এর ব্যাখ্যা হিসেবে বলা হয়েছে, এটি তার ‘ব্যাবসায়িক পলিসি’। সিনেমার বাকি অংশ শিগগিরই দেখা যাবে। তবে তার জন্য দর্শককে নতুন করে আবারও টিকিট কাটতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2020 Onenews24bd.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com