রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ১০:৩২ অপরাহ্ন

কিশোরগঞ্জে হাসপাতালে কিশোরী ধর্ষণে অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

মো: আল-আমীন, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৫ মে, ২০২২
কিশোরগঞ্জে হাসপাতালে কিশোরী ধর্ষণে অভিযুক্ত গ্রেপ্তার

কিশোরগঞ্জে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার (৫ মে) সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ২০ বছর বয়সী এই যুবকের নাম মো: মাছুম মিয়া। সে সদর উপজেলার যশোদল ইউনিয়নের মুসলিমপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তার পিতার নাম মো: মোমতাজ মিয়া।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গতকাল রাতে (বুধবার) অভিযোগ পাওয়ার পর থেকে পুলিশ গোপনে তৎপরতা চালায়। তিনি আরও জানান, সিসিটিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করে এর সত্যতা পাওয়া যায় এবং মেডিকেল ও আশেপাশের এলাকায় ছায়া তদন্ত শুরু করা হয়। অবশেষে আজকে সন্ধ্যায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়।

জানা যায়, আজ বিকালে সেই যুবক অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে পুনরায় মেডিকেল এলাকায় ঘুরতে আসে। পরে আনসার ও পুলিশ সদস্যদের মাধ্যমে ভিডিও ফুটেজের সাহায্যে নিয়ে মেডিকেল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আসামীকে গ্রেপ্তার করার পর ঐ কিশোরীর মাধ্যমে আসামীকে ভালোভাবে পুনরায় শনাক্ত করা হয়।

মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো: হাবিল উদ্দিন জানান, মেডিকেল প্রশাসনের সাহায্য নিয়ে ও সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষণ করে ঘটনার পর থেকেই আমরা আসামীকে খুঁজতে থাকি এবং আজকে শতভাগ নিশ্চিত হয়ে আসামীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। আমাদের সাথে মেডিকেলের আনসার সদস্য সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেছে।

অভিযুক্ত মো: মাছুম (২০) জানায়, সে প্রাণ আরএফএল কোম্পানীতে চাকুরী করত। গত তিন মাস যাবত সে বাড়িতে অবস্থান করছে। সে আরও জানায়, মাঝে মধ্যেই সে মেডিকেল চত্ত্বরে ঘুরতে আসে। ঘটনার দিনও সে হাসপাতালে আসার কথা স্বীকার করে।

মেডিকেল হাসপাতালের পরিচালক মো: হাবিবুর রহমান জানান, গত দুই দিন আমরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে সিসি টিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করে পুলিশ ও আনসার সদস্যদের সাহায্য নিয়ে আজকে সন্ধ্যায় আসামীকে ধরতে সক্ষম হই। ভবিষ্যতে হাসপাতালে এরকম ঘটনা যেন না ঘটে আমরা সে বিষয়ে আরও সতর্ক থাকবো। হাসপাতালে ইতিমধ্যে বহিরাগত ও রোগীর স্বজন কেউ প্রবেশ করলে পাশের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশ ছাড়া হাসপাতালে কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

এঘটনায় আসামীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দাউদ।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: