শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০২:৪৪ অপরাহ্ন

গোবর কুড়িয়ে সংসার চালায় তারা…

ওয়ান নিউজ 24 বিডি ডেস্ক
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৩ জানুয়ারী, ২০১৯

দিলীপ কুমার সাহা, নিকলী
কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার সিংপুর গ্রামের বাসিন্দা তনিয়া আক্তার। বয়স বড়জোর আট বছর। জীবনের মানে কতোটুকুইবা বুঝতে শিখেছে সে? কিন্তু বুঝুক আর না বুঝুক, শিশু বয়সেই তাকে নামতে হয়েছে জীবন ও জীবিকার কঠিন যুদ্ধে।
প্রচ- শীতে মধ্যে ছেঁড়া জামা গায়ে, খালি পায়ে এক কিলোমিটার পথ মাড়িয়ে সাত সকালেই তাকে ছুটতে দেখা যায় হাওরের মাঠে।
চোখ তার গরুর পালে সাঁটা। ওই গরুর গোবর তুলে বাড়ি নিয়ে যাবে তনিয়া। সেই গোবর খড়ে মিশিয়ে ছটা তৈরি করবেন তনিয়ার মা বেগম। প্রতি ছটা বিক্রি হবে ১০ টাকা দরে। সেই টাকায় ঘুরবে তনিয়াদের সংসাদের চাকা।
ঘুম থেকে জেগেই তনিয়া খেয়ে না খেয়ে গোবরের খোঁজে ছোটে। সঙ্গে তার দুই বছরের বড় ভাই আমিন ও বোন আকলিমা। তনিয়ার সঙ্গে তারাও ছুটে চলে মাঠের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। সকাল থেকে দুপুর এভাবেই কেটে যায় ওদের জীবন চলা।
কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলায় সিংপুর হাওরের বিশাল মাঠ যেনো গরুর পালের নয়, তনিয়াদেরও খাদ্যের উৎস। ঘাস খেতে খেতে মাঠময় চরে বেড়ায় গরুর পাল। আর চরতে থাকা গরুর পেছন পেছন ছুটে চলে তনিয়া, আকলিমা, আমিন। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত বিভিন্ন কাজ শেষে বাড়ি ফিরে ছেলে-মেয়েদের আনা গোবরে ছটা তৈরিতে বসেন মা বেগম।
ওদের বাড়ি নিকলী উপজেলার সিংপুর গ্রামে। তনিয়ার বাবা বিল্লাল মিয়া অন্যের বাড়িতে কৃষি কাজ করেন। আমিন আর আকলিমা ছাড়াও লিপা নামে আরো এক বোন এবং উমর নামে আরো এক ভাই আছে তনিয়ার।
বড় বোন লিপার বিয়ে হয়েছে। লিপা ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করে। বড় ভাই উমরও কাজ করে ঢাকায়। তনিয়ানা, আকলিমা আর আমিন ছুটে চলে গোবরের খোঁজে।

আলাপকালে তনিয়াজানায়, আমি আর আমিন ভাই ও আকলিমা আপা সকালে ভাত খাইয়া গোপর (গোবর) তুকাইতে (কুড়াতে) মাডে (মাঠে) আইয়ি। আবার দুহুর (দুপুরে) বাড়িতে যাইগা। এ ভাবেই আমাদের সময় চলে যায়। আমরার হমান বয়সীরা যহন ইস্কুলে যায় , দেইখ্যা আমারও মন চা-য় ইস্কুলে যাইতে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: