মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:৩৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
কিশোরগঞ্জ জেলা কৃষক লীগের আনন্দ র‍্যালী, প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন কিশোরগঞ্জে নিবন্ধনকৃত মহিলা সমিতি সমূহের মধ্যে চেক বিতরণ করোনার দ্বিতীয় ধাপ মোকাবেলায় কিশোরগঞ্জে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ও মাস্ক বিতরণ সন্তান প্রতিবন্ধী হওয়ায় স্ত্রীকে তালাক দিলেন স্বামী! বিক্রি করে দিয়েছিলেন চাচা-চাচি, ১২ বছর পর ফিরে পেলেন বাবা-মাকে এক দলিল লেখকের কাছে অসহায় মানুষ! গোপনে সৌদি সৌদি গিয়েছিলেন নেতানিয়াহু, বৈঠক করেছেন যুবরাজের সঙ্গে বাইডেনের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে রাজি হয়েছেন ট্রাম্প প্রাথমিকে একই রোল নম্বর নিয়ে পরের শ্রেণিতে উঠবে শিক্ষার্থীরা বিলের মধ্যে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

থানকুনি পাতার কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা

লাইফস্টাইল ডেস্ক
  • আপডেট সময় শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৯৯ বার পড়া হয়েছে

যত্ন নিয়ে চাষ করতে হয়, এমন নয়। অনেকটা অনাদরেই বেড়ে ওঠে থানকুনি পাতা। কিন্তু এর উপকারিতা বেশ দামি।

এখন অবশ্য থানকুনি পাতা চাষও হচ্ছে অনেক জায়গায়। তেতো স্বাদের এই পাতা আমাদের শরীরের জন্য অসংখ্য উপকার বয়ে আনে। মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়াতেও এই পাতা বাটা খুবই উপকারী।

থানকুনি পাতার কিছু উপকারিতা-

ক্ষত সারাতে

শরীরের কোথাও কেটে গেলে রক্তপাত থামাতে ব্যবহার করতে পারেন থানকুনি পাতা। থানকুনি পাতা বেটে আক্রান্ত স্থানে লাগালে ব্যথা কম হবে আর রক্ত পড়াও বন্ধ হয়ে যাবে। এমনকী ক্ষত থেকে সংক্রমণের আশঙ্কাও থাকে না।

শরীরে রক্ত প্রবাহ ঠিক থাকে

অনেকের থ্রম্বোসিসের সমস্যা থাকে। এছাড়াও অনেকের দেহেই অন্যান্য শারীরিক সমস্যার কারণে রক্তপ্রবাহে সমস্যা হয়। থানকুনি পাতার রস খেলে রক্ত শুদ্ধ থাকে। ফলে শরীরের প্রতি কোষে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্ত পৌঁছে যায়। ফলে অনেক সমস্যা দূর হয়।

শরীরে জ্বালাপোড়া দূর করে

থানকুনি পাতার মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটারি উপাদান। যার ফলে খুব তাড়াতাড়ি জ্বালা, যন্ত্রণা কমে যায়। এছাড়াও ক্লান্তি ভাব দূর হয়। সেই সঙ্গে অনেক রকম ইনফেকশন থেকেও দূরে রাখে।

অলসার দূর করে

পেটের যে কোনও রোগে থানকুনি পাতা ভীষণ উপকারী। আমাশয় থেকে আলসার সেরে যায় এই পাতার গুণেই। আর নিয়মিত থানকুনি পাতা খেলে হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি মেলে।

মানসিক অবসাদ দূর করে

মানসিক অবসাদে ভুগলে তা দূর করার জন্য খুব ভালো থানকুনি পাতার রস। থানকুনি স্ট্রেস হরমোনের ক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে। ফলে মানসিক চাপ আর অস্থিরতা দুটোই কমে। এর ফলে অ্যাংজাইটির আশঙ্কাও কমে যায়।

মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ে

নিয়মিত থানকুনি পাতা খাওয়া শুরু করলে শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং পেন্টাসাক্লিক ট্রিটারপেনস নামের একটি উপাদানের মাত্রা বাড়তে শুরু করে। যে কারণে ব্রেনসেল ভালোভাবে কাজ করতে পারে। স্মৃতিশক্তির উন্নতি তো ঘটেই, সেই সঙ্গে বুদ্ধির ধারও বাড়ে চোখে পড়ার মতো।

ঘুম ভালো হয়

ঘুম না আসার সমস্যা রয়েছে অনেকেরই। আপনারও এমন সমস্যা থাকলে খেতে পারেন থানকুনি পাতা ভেজানো পানি। এতে স্নায়ু শিথিল হবে। ঘুম আসবেই।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2020 Onenews24bd.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com