মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

বিশ্বকাপ ভিআরে ৪৮ ম্যাচে বাতিল ১৭ গোল, ৮ পেনাল্টি

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট সময় শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২২
বিশ্বকাপ ভিআরে ৪৮ ম্যাচে বাতিল ১৭ গোল, ৮ পেনাল্টি

বিপক্ষ দলের জালে বল জড়ানোর পরে ফুটবলার উদযাপন শুরু করে দিচ্ছে। তারপর জানা যাচ্ছে, গোল হয়নি। অফসাইড। কাতার বিশ্বকাপে নতুন উৎপাতের নাম ভিআর (VAR)। বিশ্বকাপে ভিআর প্রযুক্তির কাছে ফুটবলার থেকে দর্শক সবাই অতিষ্ঠ। বাতিল হচ্ছে একের পর এক গোল। দেওয়া হচ্ছে পেনাল্টি। গ্রুপ পর্বেই এ বারের বিশ্বকাপ ‘ভিআর আক্রান্ত’।

কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ৪৮টি ম্যাচে ভিআরের সিদ্ধান্তে বাতিল হয়েছে মোট ১৭টি গোল। তার মধ্যে ওপেন প্লে থেকে ৯টি গোল বাতিল হয়েছে।

ফুটবলার গোল দেওয়ার পরে ফাউলের কারণে সেই গোল বাতিল করেছেন রেফারি। ৮টি গোল বাতিল হয়েছে অফসাইডের কারণে। আর সবটাই হয়েছে ভিআরের সাহায্যে। ভিআর প্রযুক্তির দায়িত্বে থাকা রেফারি মাঠের রেফারিকে পরামর্শ দিয়েছেন। সেই পরামর্শ মেনে গোল বাতিল করেছেন ম্যাচ রেফারি।

ভিআরের সাহায্যে চলতি বিশ্বকাপে ৮টি পেনাল্টি দিয়েছেন রেফারিরা। তার মধ্যে অবশ্য ৫টি পেনাল্টি মিস্‌ করেছেন ফুটবলাররা।

‘সি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে লিওনেল মেসির পেনাল্টি মিস তারমধ্যে অন্যতম। ভিআরের সাহায্য নিয়ে পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। কিন্তু মেসির শট বাঁচিয়ে দেন পোল্যান্ডের গোলরক্ষক শেজনি।

ভিআরের সাহায্যে পেনাল্টি বাতিলও হয়েছে। বেলজিয়ামের বিপক্ষে ক্রোয়েশিয়ার জন্য পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি। কিন্তু পরে ভিআরের সাহায্যে সেই পেনাল্টি বাতিল করেন রেফারি। কারণ, ক্রোয়েশিয়ার ফুটবলারকে ফাউল করার আগে তাদেরই এক ফুটবলার অফসাইডে ছিলেন।

ভিআরের সাহায্যে গোলও হয়েছে এ বারের বিশ্বকাপে। ২টি গোল অফসাইডের কারণে বাতিল করেছিলেন লাইন্সম্যান। কিন্তু পরে ভিআরে সেই সিদ্ধান্ত বদলে যায়।

তবে ভিআরের জন্য চলতি বিশ্বকাপে লাল কার্ড দেখতে হয় ওয়েলসের গোলরক্ষক ওয়েন হেনসিকে। ইরানের বিপক্ষে হেনসি ফাউল করেন। বক্সের বাইরে ইরানের মেহদি তারেমিকে ফাউল করেন তিনি। প্রথমে রেফারি হলুদ কার্ড দেখান। কিন্তু পরে ভিআরের সাহায্য নিয়ে লাল কার্ড দেখান রেফারি।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: