বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ০৫:০২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
করোনার মধ্যেই সুখবর পেলো বাংলাদেশ করোনায় আক্রান্ত হয়ে কঙ্গোর সাবেক প্রেসিডেন্টের মৃত্যু কমলগঞ্জে হাটবাজারগুলোতে লোকসমাগম বৃদ্ধি কমলগঞ্জ পৌর মেয়র খাবার নিয়ে ছুটলেন কর্মহীনদের বাড়ি বাড়ি নিকলীতে কর্মহীন হতদরিদ্র মানুষের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কিশোরগঞ্জে ৮০ পিস বুপ্রেনরফিন ইনজেকশন’সহ আটক ১ হোসেনপুরে সামাজিক দূরত্ব নির্ণয় নির্দেশক চিহ্ন আঁকা শুরু করেছে পুলিশ, সাবান ও মাস্ক বিতরণ কমলগঞ্জে শমশেরনগরসহ ৫ চা বাগানে কাজে ফিরেছে শ্রমিকরা নিকলী উপজেলা ছাত্রলীগের জীবাণুনাশক স্পে, ও লিফলেট বিতরণ আখাউড়া-চেকপোষ্ট সিএনজি স্ট্যান্ডের পক্ষ থেকে সিএনজি শ্রমিকদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

ভৈরবে ১২৭জন হোম কোয়ারেন্টাইনে ও ৬জন আই সোলেশন সেন্টারে, নির্দেশনা না মানলে শাস্তি

হৃদয় আজাদ, ভৈরব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় বুধবার, ১৮ মার্চ, ২০২০
  • ৪৬০ বার পড়া হয়েছে

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কিশোরগঞ্জের ভৈরবে গত এক সপ্তাহে বিদেশ ফেরত ১২৭জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে ও নিয়ম না মানায় ৬জনকে আই সোলেশন সেন্টারে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এছাড়াও ১৪দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পর করোনা ভাইরাসের কোনো লক্ষণ না পাওয়া যাওয়ায় বিদেশ ফেরত ৩০জনকে স্বাভাবিক চলাফেরার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ বুলবুল আহমেদ আজ বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। হোম কোয়ারেন্টাইন ও আই সোলেশন সেন্টারে থাকা ব্যক্তিদের বেশির ভাগ ইতালি ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ থেকে দেশে ফিরেছেন।

জানা যায়, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক বিদেশ ফেরত সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম অনুযায়ী ১৪দিন নিজ বাড়ির নির্দিষ্ট কক্ষে অবস্থান করতে বলা হয়। কিন্তু ভৈরবের বিদেশ ফেরত অনেকেই নিজেদেরকে সুস্থ দাবি করে সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে অবাদে স্বাভাবিক চলাফেরা করছেন। এতে হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে পাড়া-প্রতিবেশীসহ সবাইকে। পরে হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম ভঙ্গকারি ব্যক্তিদেরকে আজ বুধবার সকালে স্থানীয় নির্মাণাধীন ট্রমা সেন্টারের আই সোলেশন ইউনিটে পর্যবেক্ষণে রাখার নির্দেশ দেন কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ সারোয়ার মোর্শেদ চৌধুরি। জেলা প্রশাসকের নির্দেশনার পরপরই তৎপর হয়ে উঠে স্থানীয় প্রশাসন। গতকাল বিকেলেই বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের তালিকা অনুযায়ী পুলিশ সাথে নিয়ে বেশ কয়েকজন প্রবাসীর বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের অবস্থান যাচাই করেছেন ভৈরব উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) হীমাদ্রী খীসা। এসময় তালিকাভুক্ত ৬জন বাড়িতে না থাকায় পরবর্তীতে তাদেরকে আই সোলেশন সেন্টারে নিয়ে আসা হয়।

এবিষয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির আহবায়ক ও ভৈরব উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা লুবনা ফারজানা জানান, বিদেশ ফেরত প্রত্যেক ব্যক্তিকে নিজের নিরাপত্তার পাশাপাশি দেশ ও জাতির স্বার্থেই হোম কোয়ারেন্টাইন এর নিয়ম মেনে চলা উচিৎ। তবে ভৈরবে বিদেশ ফেরত অনেকেই সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাই জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা সবাইকেই আই সোলেশন সেন্টারে রাখা হবে। ইতো মধ্যে ৬জনকে আই সোলেশন সেন্টারে নেওয়া হয়েছে এবং বাকিদেরও আনা হবে। এছাড়াও যদি কেউ সরকারি নির্দেশনা উপক্ষো করেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2020 Onenews24bd.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com