মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

রেকর্ড দামে বিক্রি মারাদোনার ‘হ্যান্ড অব গড’ বল

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২২
রেকর্ড দামে বিক্রি মারাদোনার ‘হ্যান্ড অব গড’ বল

কাতারে বিশ্ব ফুটবলের মহাযুদ্ধ শুরু হচ্ছে আগামী ২০ নভেম্বর। বিশ্বকাপের জন্য কাতারে পৌঁছেছে প্রায় সবকটি দলই। এদিকে ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ খেলতে কাতারে আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন সমর্থকদের প্রত্যাশা তাদের প্রিয় দলের ঝুলিতে আসুক বিশ্বকাপ, আর সেটা হোক মেসির হাত ধরে।

কাতার বিশ্বকাপ শুরুর আগে ফুটবল রাজপুত্র আর্জেন্টিনার দিয়েগো মারাদোনার বিখ্যাত ‘হ্যান্ড অব গড’ বল নিলামে রেকর্ড দামে বিক্রি হলো।

১৯৮৬ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে ফুটবল রাজপুত্র দিয়েগো মারাদোনার সেই বিতর্কিত ‘হ্যান্ড অব গড’ ম্যাচের জার্সি মাস ছয়েক আগে ৯.৩ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হয়েছিলো। এর আগে কোনো ক্রীড়া স্মারক এতো দামে বিক্রি হয়নি। স্পোর্টস সামগ্রীর নিলামে সর্বোচ্চ দামে বিক্রি হলো মারাদোনার জার্সিটি।

মেক্সিকোতে বিখ্যাত সেই কোয়ার্টার ফাইনালের পর মারাদোনা জার্সিটি দিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের সাবেক মিডফিল্ডার স্টিভ হজকে। ৩৬ পর জার্সিটি নিলামে তোলেন তিনি।

এ বার রেকর্ড অর্থে বিক্রি হলো ‘হ্যান্ড অব গড’ বলটি। ১৯৮৬ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হেডে গোল করতে গিয়ে তার বদলে হাত দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দিয়েছিলেন মারাদোনা। আর্জেন্টিনা বনাম ইংল্যান্ডের সেই ম্যাচে পুরো ৯০ মিনিট একটি বলেই খেলা হয়। তার অনেক পরে এক ম্যাচে একাধিক বল ব্যবহারের অনুমতি দেয় ফিফা।

গোলের সেই সময় রেফারি ঠিকভাবে পিছন থেকে তা লক্ষ্য করতে না পারার ফলে গোল দিয়ে দেন। যে বল দিয়ে ওই গোল করেছিলেন মারাদোনা, সেই বলই বুধবার লন্ডনে নিলামে উঠেছিলো। সেই ম্যাচের রেফারি তিউনিশিয়ার আলি বিন নাসেরের কাছেই এতোদিন বলটি ছিলো। এ বার সেটি নিলামে বিক্রি হলো ২.৪ মিলিয়ন ডলারে।

তিউনিশিয়ার রেফারি নাসের বলেন, এই বলটি আন্তর্জাতিক ফুটবল ইতিহাসের একটি অংশ। আমার মতে এটিকে বিশ্বের সঙ্গে ভাগ করে নেয়ার এটাই সেরা সময়। চিরস্মরণীয় সেই ম্যাচে মারাদোনার ব্যবহৃত বিভিন্ন জিনিসপত্র এর আগেও নিলামে উঠেছে।

বিতর্কিত গোলের বিষয়ে নাসের বলেন, আমি গোটা ঘটনাটি ঠিকভাবে দেখতে পারিনি। শিল্টন ও মারাদোনা আমার দৃষ্টি আটকে দিয়েছিলেন। টুর্নামেন্টের আগে ফিফার নিয়ম অনুযায়ী, আমি তাই লাইন্সম্যানের দিকে গোল নিশ্চিত করার জন্য তাকিয়েছিলাম ও মাঝমাঠের দিকে ফিরে আসে, যার অর্থ হল ওর মতে গোলটি বৈধ ছিলো। যদিও ম্যাচের শেষে ইংল্যান্ডের প্রধান কোচ ববি রবসন আমাকে বলে যান, তুমি ভালো কাজ করেছ, কিন্তু লাইন্সম্যান দায়িত্বজ্ঞানহীন।

উল্লেখ্য, ১৯৮৬ সালের সেই বিশ্বকাপের ফাইনালে পশ্চিম জার্মানিকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ জিতেছিলো আর্জেন্টিনা।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ২০২০ সালের নভেম্বরে না ফেরার দেশে চলে যান ৮৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী এ কিংবদন্তি। মৃত্যুকালে মারাদোনার বয়স হয়েছিলো ৬০ বছর। আর্জেন্টিনার জার্সিতে ৯১ ম্যাচে ৩৪ গোল করেছেন তিনি। খেলেছেন ৪টি বিশ্বকাপে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: