মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
নাটোরের লালপুরে দিনব্যাপি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর পৌরসভা নির্বাচনে ৫ মেয়র ও ৪৭ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল আঃ লীগ প্রার্থী নির্বাচিত হয়েই ছুটে গেলেন, প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থীর কাছে  কিশোরগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ডিজিটাল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করলেন যেসব তারকা দ্বিতীয় ধাপের ভোটে মেয়র হলেন যারা কিশোরগঞ্জে ভাসমান নৌকায় আগুনের ঘটনায় আরও দু’জনের মৃত্যু নিকলীতে ষ্টাফ ও খামারীদের হাঁস পালন দক্ষতাবৃদ্ধি বিষয়ে ৩ দিনের প্রশিক্ষণ অনুষ্টিত সিরাজগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় বিজয়ী কাউন্সিলর নিহত  বেলকুচি পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী বিজয়ী

করোনার মধ্যেই সুখবর পেলো বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০
  • ১০৩১ বার পড়া হয়েছে

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের এ মহামারির সময় সুখবর পেল বাংলাদেশের তৈরি পোশাক খাত। ইউরোপের বাজারে বাংলাদেশের জিএসপি (অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্যিক সুবিধা) সুবিধা প্রত্যাহারের আবেদন নাকচ করে দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) ন্যায়পাল কার্যালয়।

২০১৬ সালে ইইউ ন্যায়পাল অফিসে শ্রম অধিকার নিয়ে কাজ করা চারটি সংগঠন বাংলাদেশের শ্রমমান নিয়ে প্রশ্ন তুলে জিএসপি সুবিধা বাতিলের আবেদন করে। গত ২৪ মার্চ জিএসপি সুবিধা প্রত্যাহারের আবেদন নাকচ করে দিয়ে ন্যায়পাল কার্যালয় বলে, শ্রম পরিবেশ ইস্যুতে ন্যায়পাল কার্যালয়ের তদন্তে বাংলাদেশের তেমন কোনো ক্রটি পাওয়া যায়নি। বাংলাদেশের শ্রমমান উন্নয়নে ইউরোপীয় কমিশন যেসব পদেক্ষপ নিয়েছে এবং যেভাবে যোগাযোগ রক্ষা করছে, তা ঠিক আছে। আগামীতে এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হলে ইউরোপীয় কমিশন নেবে। এদিকে নানামুখী সংকটের মধ্যে তৈরি পোশাকের জন্য এ সুখবরকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশের গার্মেন্টস উদ্যোক্তারা।

এ বিষয়ে দেশের পোশাক খাতের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি ড. রুবানা হক বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ন্যায়পাল কার্যালয়ের আদেশটি আমাদের জন্য অত্যন্ত একটি সুসংবাদ। কারণ শ্রমিক ইস্যুতে সবসময় আমাদের সমালোচনা করে থাকেন।

তিনি বলেন, ২০১৬ সালের অক্টোবরে চারটি শ্রমিক সংগঠন বলেছিল যে, বাংলাদেশ তাদের শ্রমিকদের ন্যায় প্রদান করেন না। এরপর ইইউ ন্যায়পাল অফিস বিষয়টি তদন্ত করে। তদন্তে তাদের অভিযোগ প্রমাণ হয়নি। সব বিবেচনা করে তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর ফলে আমাদের দুর্নাম মোচন হলো। সত্যের জয় হলো।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2020 Onenews24bd.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com