বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন

কিশোরগঞ্জে ভূমি সেবা সপ্তাহ ২০২২ উদযাপন

মো: আল-আমীন, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় রবিবার, ২২ মে, ২০২২
কিশোরগঞ্জে ভূমি সেবা সপ্তাহ ২০২২ উদযাপন

আজ রবিবার (২২ মে) কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসনের আয়োজনে কিশোরগঞ্জ সদর ভূমি অফিস চত্ত্বরে ভূমি সেবা সপ্তাহ ২০২২ উদযাপন করা হয়।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নুরুজ্জামান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভূমি মন্ত্রাণালয়ের (আইন-১) উপ-সচিব ইশরাত ফারজানা।

অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, কিশোরগঞ্জ সনাকের সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুল, ক্যাব সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক আলম সারোয়ার টিটু। এছাড়াও অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন ভূমি অফিসে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারী বৃন্দ।

জেলা ক্যাব সভাপতি আলম সারোয়ার টিটু ও সনাক সভাপতি সাইফুল হক মোল্লা দুলু তাদের বক্তব্যে বলেন, অতীতে আমাদের কাছে ভূমি সংক্রান্ত বিষয়ে হয়রানি ও ভোগান্তিমূলক অনেক অভিযোগ জমা হতো। কিন্তু বর্তমানে সময়ে এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ আসে না। তারমানে আমরা ধরে নিতে পারি ভূমি সেবাতে হয়রানি ও ভোগান্তি কমেছে। 

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নুরুজ্জামান বলেন, আমাদের ভূমি সেবা আরও এগুবে। ভূমি সেবাতে কোনো হয়রানি, ভোগান্তি থাকবে না। কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে হয়রানি ও ভোগান্তিমুক্ত সেবা দেওয়ার জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভূমি মন্ত্রাণালয়ের (আইন-১) উপ-সচিব ইশরাত ফারজানা বলেন, সমাজের উচ্চ ও নিম্ন শ্রেণির মানুষ সকলেই কিন্তু ভূমি সেবার সাথে সম্পৃক্ত। তিনি আর বলেন, আমরা স্বীকার করি বা না করি ভূমি অফিসগুলোতে মানুষ যে সেবার জন্য যায় তাতে কিছু হয়রানি, কিছু অনিয়ম ছিল তবে এখন আমি বলতে পারি যে, জনগণ ভূমি অফিসে যে সেবার জন্য যাবে তিনি অত্যন্ত সচ্ছতার সাথে হয়রানিমুক্ত সেবা পাওয়ার জন্য যত ধরণের উপায় আছে সরকার সব ব্যবস্থা করেছেন।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিসগুলো এক সময় খুব নাজুক অবস্থায় ছিল। কম্পিউটার তো দূরের কথা ফটোকপি করার মতোও ব্যবস্থা ছিল না। অফিসগুলোও ছিল জরাজীর্ণ অবস্থায়। কিন্তু বর্তমানে সে সময় নেই। প্রত্যেকটা ভূমি অফিস আধুনিকায়ন করা হচ্ছে। যেগুলো বাকি আছে সেগুলো খুব দ্রুত উন্নত করার চেষ্টা অব্যাহত আছে। অতীতের যেকোন সময়ের চেয়ে বর্তমানে ভূমি সেবার মান খুবই উন্নত। মানুষ যেন সহজেই ভূমি সেবা পেতে পারে সেজন্য প্রযুক্তিগতভাবে সব ধরণের সেবা চালু করা হয়েছে ভূমি সেবাতে। 

তিনি আরও বলেন, এবার থেকে প্রতি বছর ভূমি সেবা সপ্তাহে স্বচ্ছ, দক্ষ, জনবান্ধব ও জবাবদিহিমূলক ভূমিসেবা দেওয়া ও বাস্তবায়নে বিশেষ কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়। এর আওতায় মাঠ পর্যায়ে ভূমি অফিসে কর্মকর্তাদের পুরস্কার দেওয়া হবে।  

সহকারী কমিশনার (ভূমি), কানুনগো, সার্ভেয়ার, ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা, ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা, জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসার, চার্জ অফিসার, সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার, উপ-সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসার এবং সেটেলমেন্ট সার্ভেয়ারদের মধ্যে থেকে নিজ নিজ পদবির ক্যাটাগরিতে মূল্যায়ন করা হবে। মূল্যায়নে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়াদের পুরস্কার হিসেবে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট দেওয়া হবে।

ভূমি অধিকার সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং ভূমি ব্যবস্থাপনায় দক্ষতা ও গতিশীলতা আনতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ১৯ মে থেকে শুরু হয়েছে ‘ভূমি সেবা সপ্তাহ-২০২২’। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত ভূমি সেবা সপ্তাহ উদযাপন করা হবে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: