বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৪:০৯ অপরাহ্ন

নোটিশ :
আমাদের নিউজ সাইটে খবর প্রকাশের জন্য আপনার লিখা (তথ্য, ছবি ও ভিডিও) মেইল করুন onenewsdesk@gmail.com এই মেইলে।
সর্বশেষ খবর :
মন্ত্রিসভায় রদবদলের গুঞ্জন, ভাগ্য খুলছে বেশ কয়েকজন নেতার! সৌদিতে আরও দুই বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু রাজশাহীতে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও মাদক বিরোধী আলোচনা সভা নওগাঁয় চাঞ্চল্যকর নাজিম হত্যায় জড়িত দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ বিনামূল্যে ২৫০টি স্কুল ব্যাগ বিতরণ ও উত্তীর্ণদের সংবর্ধনা প্রদান শ্রীমঙ্গলে সেন্ট মার্থাস উচ্চ বিদ্যালয়ের বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপন পাকুন্দিয়া বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুলবল টুর্ণামেন্ট সম্পন্ন তাড়াইলে দুর্নীতি বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীন থেকে ঋণ নেবে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে ঈদযাত্রা শুরু, প্রথম দিনই শিডিউল বিপর্যয়

জুলাইয়ের ২১ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৫ হাজার ৪৭৫ কোটি টাকা

ডেস্ক নিউজ
  • আপডেট সময় রবিবার, ২৩ জুলাই, ২০২৩
  • ২৫ বার পড়া হয়েছে
জুলাইয়ের ২১ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৫ হাজার ৪৭৫ কোটি টাকা

চলতি জুলাই মাসের প্রথম ২১ দিনে ১৪২ কোটি ৬৩ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। দেশীয় মুদ্রায় (প্রতি ১ ডলার ১০৮ টাকা ৫০ পয়সা হিসাবে) যা দাঁড়ায় ১৫ হাজার ৪৭৫ কোটি টাকা। এ হিসাবে প্রতিদিন রেমিট্যান্স এসেছে গড়ে ৬ কোটি ৭৯ লাখ ডলার।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্যে এ বিষয়ে জানানো হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য বলছে, ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জুলাই মাসের প্রথম ২১ দিনে ১৪২ কোটি ৬৩ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে এসেছে।

এর মধ্যে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ১৮ কোটি ১৪ লাখ ৫০ হাজার ডলার। আর বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ৪ কোটি ৯৯ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১১৯ কোটি ৮০ হাজার ডলার ও বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৪৭ লাখ ৯০ হাজার ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংক আরও জানায়, জুলাই মাসের ১৫ থেকে ২১ জুলাই দেশে এসেছে ৪৩ কোটি ৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার। আর চলতি মাসের প্রথম ১৪ দিনে ৯৯ কোটি ৫৫ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এছাড়া জুলাই মাসের প্রথম ৭ দিনে রেমিট্যান্স এসেছিল ৪৬ কোটি ৫৬ লাখ মার্কিন ডলার।

এদিকে সদ্য বিদায়ী ২০২২-২৩ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ২ হাজার ১৬১ কোটি ৬ লাখ ৬০ হাজার মার্কিন ডলার। আর ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশে এসেছিল ২ হাজার ১০৩ কোটি ১৬ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স, যা সদ্যবিদায়ী ২০২২-২৩ অর্থবছরের তুলনায় ৫৭ কোটি ৮৯ লাখ ৮০ হাজার ডলার কম।

এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ তথ্যে জানা যায়, ২০২০-২১ অর্থবছরে ২ হাজার ৪৭৭ কোটি ৭৭ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ১ হাজার ৮২০ কোটি ৫০ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার।

২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে ১ হাজার ৬৪১ কোটি ৯৬ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরও জানায়, সদ্যবিদায়ী ২০২২-২৩ অর্থবছরে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৩৩৯ কোটি ৯১ লাখ ৯০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স। আর বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ৫২ কোটি ২২ লাখ ৪০ হাজার ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১ হাজার ৭৬১ কোটি ২০ লাখ ৫০ হাজার ডলার এবং বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৭ কোটি ৭১ লাখ ৮০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, সদ্য বিদায়ী অর্থবছরের জুন মাসে দেশে ২১৯ কোটি ৯০ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে, যা ওই অর্থবছরের সর্বোচ্চ ও বিগত পাঁচ অর্থবছরের মধ্যে জুন মাসে আসা সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স।

এদিকে ২০২২-২৩ অর্থবছরের সদ্যবিদায়ী জুন মাসে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৩৩ কোটি ৭৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার। এছাড়া বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ১০ কোটি ৯৪ লাখ ৯০ হাজার মার্কিন ডলার, বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ১৭৪ কোটি ৬০ লাখ ৬০ হাজার ডলার ও বিদেশি খাতের ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এসেছে ৫৬ লাখ ১০ হাজার ডলার রেমিট্যান্স।

বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, ২০২১-২২ অর্থবছরের জুন মাসে দেশে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৮৩ কোটি ৭২ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার। ২০২০-২১ অর্থবছরের জুন মাসে দেশে রেমিট্যান্সে এসেছে ১৯৪ কোটি ৮ লাখ ১০ হাজার ডলার। ২০১৯-২০ অর্থবছরের জুন মাসে দেশে রেমিট্যান্সে এসেছিল ১৮৩ কোটি ২৬ লাখ ৩০ হাজার ডলার। আর ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জুন মাসে দেশে রেমিট্যান্সে এসেছিল ১৩৬ কোটি ৮২ লাখ ২০ হাজার ডলার।

সদ্যবিদায়ী অর্থবছরের জুলাইতে ২০৯ কোটি ৬৩ লাখ ২০ হাজার, আগস্টে ২০৩ কোটি ৬৯ লাখ ৩০ হাজার, সেপ্টেম্বরে ১৫৩ কোটি ৯৬ লাখ, অক্টোবরে ১৫২ কোটি ৫৫ লাখ ৪০ হাজার, নভেম্বরে ১৫৯ কোটি ৫১ লাখ ৭০ হাজার, ডিসেম্বরে ১৬৯ কোটি ৯৭ লাখ, জানুয়ারিতে ১৯৫ কোটি ৮৮ লাখ ৭০ হাজার, ফেব্রুয়ারিতে ১৫৬ কোটি ৪ লাখ ৮০ হাজার, মার্চে ২০২ কোটি ২৪ লাখ ৭০ হাজার, এপ্রিলে ১৬৮ কোটি ৪৯ লাখ ১০ হাজার, মে মাসে ১৬৯ কোটি ১৬ লাখ ৩০ হাজার ও জুন মাসে এসেছে ২১৯ কোটি ৯০ লাখ ১০ হাজার মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2024 Onenews24bd.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com