সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:১৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
নোবেলজয়ী ড. ইউনূসের ব্যাংক হিসাব তলব জাবি শিক্ষার্থীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন শাবি ভিসি কমলগঞ্জে মাস্ক ব্যবহার না করায় জরমিানা নিকলী উপজেলা পরিষদের সীমানার প্রাচীর ভাঙ্গার অভিযোগে অফিসে ডেকে এনে এক ব্যক্তিকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ পরিস্থিতি, মার্কিনিদের ফেরার নির্দেশ বিধিনিষেধ বাড়বে কিনা, সিদ্ধান্ত ৭ দিন পর নিকলীতে মাসিক আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা অনুষ্টিত হোসেনপুরে বালুবাহী ট্রাক কেড়ে নিল রিক্সাচালকের প্রাণ হোসেনপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন কমলগঞ্জে অবৈধ ও অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন, আপত্তি জানানোয় বাগান ব্যবস্থাপককে হুমকি

তাড়াইলের লেপ-তোষক কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছে

রুহুল আমিন, তাড়াইল, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় রবিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২১
তাড়াইলের লেপ-তোষক কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছে

আসছে শীত, বাড়ছে লেপ-তোষকের কদর। তাই কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে লেপ-তোষকের কারিগরদের ব্যস্ততাও বেড়েছে। শনিবার (২৭ নভেম্বর) উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে লেপ-তোষকের দোকানগুলো ঘুরে দেখা গেছে এমন দৃশ্য।

সরেজমিনে দেখা যায়, তাড়াইল উপজেলার ব্যাবসায়ীরা দোকান সাজিয়ে বিক্রি শুরু করেছেন শীতের গরম কাপড়। গত সপ্তাহ থেকেই তাড়াইল উপজেলার সর্বত্রই শীত অনুভূত হচ্ছে। ভোরবেলায় কুয়াশায় ঢেকে যায় সবুজ মাঠ ও গাছপালা। পৌষ ও মাঘ মাস পুরো শীতকাল। শীত মোকাবিলায় পল্লী গ্রামের মানুষ আগেই লেপ-তোষক জোগাড় শুরু করেছেন। তাই শীতকে সামনে রেখে কারিগরদের এখন যেন দম ফেলার বিরাম নেই।

তাড়াইল উপজেলার সদর বাজারের লেপপট্রির ব্যাবসায়ী তাজুুুল ইসলামসহ আরো অনেকে জানান, এ বছর ক্রেতার সংখ্যা অনেকটাই বেশি। পুরো বছরের চেয়ে শীতের এই তিন মাস বেচাকেনা একটু বেশিই হয়। তাই ক্রেতাদের কথা ভেবে জিনিসপত্রের গুণগত মান বজায় রেখে অর্ডারি কাজের পাশাপাশি রেডিমেড জিনিসও তৈরি করে বিক্রি করছি।
তিনি আরো বলেন, এখানে স্থানিয়ভাবে প্রায় বহুদিন পর্যন্ত ব্যবসা করে আসছি। করোনাকালীন সময়ে দোকানপাট বন্ধ থাকায় খুব বিপাকে সময় পার করছি। সরকারিভাবে কোনো সুযোগ সুবিধাও পায়নি। কোনোভাবে ঋণের ব্যবস্থা করে দিলে একপর্যায় এধরনের ক্ষতিগ্রস্তের মধ্যে কিছুটা হলেও স্বস্তি পেতাম। না হয় এই পেশা থেকে ব্যবসায়ীরা আস্তা হারাবে।

স্থানিয় ব্যবসায়ীরা আরো জানান, লেপ-তোষক বানাতে গার্মেন্টেসের ঝুট ও কার্পাস তুলো ব্যবহার করতে হয়। একটি সিঙ্গেল লেপ বানাতে ৬৫০-৭০০ টাকা, সেমি-ডাবল লেপ ৭০০-৯০০ টাকা এবং ডাবল লেপ তৈরিতে ৭৫০-১৮০০ টাকা বিক্রি হয়। এরমধ্যে রয়েছে সুতো, কাপড় ও মজুরি ব্যয়। তবে, তোষক বানানোর ক্ষেত্রে দাম বেশি পড়ে। তুলার মান, পরিমাণ, নারিকেলের ছোবলা ও কাপড়ের ওপর নির্ভর করে একেকটি তোষক তৈরির ব্যয়। তবে আমাদের সকলের একটায় দাবী সরকারিভাবে এই পেশায় সম্পৃক্ততা যারা রয়েছে প্রশাসন আমাদের পাশে থেকে সহযোগীতা করার অনুরোধ করছি।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2021 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: