রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৮:৪২ অপরাহ্ন

নিকলীতে দুইটি ইউনিয়নে পরিষদের ভবন না থাকায় জনদুর্ভোগ

দিলীপ কুমার সাহা, নিকলি, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩১৫ বার পড়া হয়েছে
নিকলীতে দুইটি ইউনিয়নে পরিষদের ভবন না থাকায় জনদুর্ভোগ

কিশোরগঞ্জের হাওরবেষ্টিত নিকলী উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) তিনটিতেই ভবন নেই। এতে স্থানীয় মানুষ দীর্ঘদিন ধরে পরিষদ থেকে নানা রকম সেবা পেতে গিয়ে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলায় সাতটি ইউনিয়নের মধ্যে দামপাড়া, কারপাশা, জারুইতলা ও গুরুই ইউনিয়নে ইউপি কমপ্লেক্স ভবন আছে। নিকলী সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কারার সাহরিয়া আহমেদ তুলিপ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব সাত শতাংশ জায়গায় দুইটি টিনসেট বিল্ডিংয়ে কোনো রকমে কাজ চালাচ্ছে। ছাতিরচর ও সিংপুর ইউনিয়ন পরিষদের কার্যক্রম চলছে নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের বাড়িতে। এ কারনে স্থানীয় লোকজন ইউনিয়ন পরিষদের তথ্যসেবাকেন্দ্র থেকে যে টুকু সেবা পাওয়ার দরকার সে টুকু পাচ্ছে না। পাশাপাশি নানা ধরনের পরামর্শ ও উন্নয়নমূলক সেবা থেকেও তারা বঞ্চিত হচ্ছেন।

নিকলীতে বোরো ধানের চারা রোপনে ব্যস্ত কৃষক

সিংপুর ইউনিয়নের গোড়াদীঘা গ্রামের কৃষক ইসরাইল মিয়া (৫০) জানান, তাদের ইউনিয়নে পরিষদের কোনো কার্যালয় নেই। কোনো সেবা পাওয়ার জন্য তাদের তিন কিলোমিটার দূরে বাটিবরাইটিয়া গ্রামে চেয়ারম্যানের বাড়িতে অস্থায়ী কার্যালয়ে যেতে হয়।অনেক সময় এলাকার জনগন চেয়ারম্যানের পরিচয়পত্র, ভিজিডির চাল, ভিজিএফের চাল, কৃষিবিষয়ক পরামর্শ ও সরকারি সুযোগ-সুবিধা পেতে গিয়ে তাদের হয়রানির শিকার হতে হয়। ছাতিরচর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জামাল উদ্দিন জানান, ছাতিরচরে ইউনিয়ন পরিষদ না থাকায় আমার নিজ বাড়ির একটি ঘরে পরিষদের কার্যক্রম চালাতে হচ্ছে। ইউনিয়নে শিক্ষা, পরিবার পরিকল্পনা, কৃষিসহ মোট ১৩ টি স্থায়ী কমিটি রয়েছে। কিন্ত ভবন না থাকায় এসব কমিটির কার্যক্রমের কোনো রকম সুফল এলাকার লোকজন পাচ্ছেন না।

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএও) মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তার বলেন, উপজেলা সিংপুর ইউনিয়নে কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণের স্থান নির্ধারন নিয়ে জটিলতা রয়েছে। ছাতিরচর ইউনিয়নের জায়গা সংকট রয়েছে। তবে ওই দুইটিতে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণের জন্য যত দ্রুত সম্ভব যথাযথ উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। নিকলী সদর ইউনিয়নের জন্য নতুন করে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণের জন্য কিছু দিনের মধ্যে টেন্ডার দেওয়া হবে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2021 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: