রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১৯ পূর্বাহ্ন

পুলিশি হয়রানির প্রতিবাদে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

আলী হায়দার, কুলিয়ারচর, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২১
পুলিশি হয়রানির প্রতিবাদে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলন

রাত পোহালেই কুলিয়ারচর পৌরসভা নির্বাচন। নির্বাচন নিয়ে এতোদিন বিএনপির কোন রকম অভিযোগ না থাকলেও, নির্বাচনের আগ মুহূর্তে বিএনপির বিভিন্ন নেতাকর্মীদের বাড়িতে পুলিশ কর্তৃক হুমকি, গায়েবি মামলা ও পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা সহ বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী নূরুল মিল্লাত।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকাল ১১ টায় কুলিয়ারচর পৌরসভা ৫নং ওয়ার্ড বেতিয়ারকান্দি কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি শরিফুল আলমের গ্রামের বাসায় এই সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী লিখিত বক্তব্যের অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী বিগত ২০ ডিসেম্বর মনোনয়ন দাখিলের পর থেকে নির্বাচনীয় আচারণ বিধি ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্বাচনের প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসছি। কিন্তু সম্প্রতি ১৩ জানুয়ারি ভোর আনুমানিক ৪:২০ টায় পৌর এলাকার কামালিয়াকান্দি গ্রামস্থ ৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোঃ মানিক মিয়ার বাড়িতে পুলিশের পোষাক পরিহিত কয়েকজন এবং মুখোশ পরিহিত কয়েকজন লোক তার বাড়িতে প্রবেশ করিয়া তার ঘরের জানালা গ্রিলে বাইরাইতে থাকে এবং মানিক মিয়া বলিয়া ডাকিতে থাকে।

পরে মানিক মিয়া আসলে তাকে বিশ্রী ভাষায় গালাগালি পূর্বক বলে যে, “তুই এখনও বাড়িতে আছিস, তুই আগামীকালের ভিতর বাড়ি ছেড়ে দিবি এবং নির্বাচনের পরে বাড়ি আসবি, তোর স-মিল বন্ধ রাখবি”। ওই রাতে একই ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ তোফাজ্জল হোসনের বাড়িতে গিয়ে একই ভাবে হুমকি দেয় এবং এলাকা ছাড়তে বলে যায়। এছাড়া একই রাতে পৌর বিএনপির সাবেক সদস্য মোঃ খোকন মিয়ার বাড়িতে গিয়ে তাকে হুমকি প্রদানসহ চর থাপ্পড় ও লাঠিপেটা করে।

এরই ধারাবাহিকতায় ৭নং ওয়ার্ড বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি সদস্য মোঃ সানাউল্লাহ এবং পৌর যুবদলের সভাপতি মোঃ কামাল হুসেন ও পৌর যুবদলের সদস্য বুরহান মিয়ার বাড়িতে বেশ কিছুসংখ্যক লোক সিভিল বেশে পুলিশ পরিচয়ে ১২ জানুয়ারি দিবাগত রাতে একই ভাবে হুমকি দেয়।

এছাড়া ৭নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও বর্তমান কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোঃ হারিস উদ্দিন এবং একই ওয়ার্ডের আরেক কাউন্সিলর পদপ্রার্থী জামাল উদ্দিন সহ পৌর এলাকার আদমখারকান্দি গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমান বিপু, সাফিউদ্দিন, সামসুল হক, কফিল উদ্দিন ও বুরহান মিয়া, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল ইসলাম মুছার বাড়িতে গিয়ে একই ভাবে এলাকা ছাড়ার হুমকি প্রদান সহ আলীআকবরী, আদমকারকান্দি, পালটিয়া মাসকান্দি এলাকার পোস্টের ছিঁড়ে ফেলে।

এই সময় তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন, আমরা ইতোমধ্যে জানতে পেরেছি আমাদের ২০/২৫ জন নেতাকর্মীর নামে গায়েবি মামলা দায়ের হয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়ে সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রশাসনসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট সকলের নিকট একটি নিরপেক্ষ, সুন্দর নির্বাচন উপহার  দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি এবং ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারে, সে পরিবেশ সৃষ্টি ও নেতাকর্মীদের হয়রানি বন্ধ করার জন্য পুলিশ প্রশাসন, স্থানীয় প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2021 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: