বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১১:৩৫ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
নিকলীতে ধারালো কিরিচের আঘাতে যুবক খুন, আটক ৬ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন পাকুন্দিয়া পৌরসভা আটা ময়দার পাইকারি বাজারে অনিয়মের দায়ে ভোক্তা-অধিকার অধিদপ্তরের জরিমানা নওগাঁয় শুরু হয়েছে আম নামানোর উৎসব পিপি শাহ আজিজুল হক আর নেই, প্রথম জানাযা পাগলা মসজিদে ১৮ বছর পর নতুন নেতৃত্ত্ব পেল হোসেনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ রাত পোহালেই কিশোরগঞ্জ সদর আ.লীগের সম্মেলন, নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ কিশোরগঞ্জে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নে অভিযান, তিনটি রেস্টুরেন্টকে জরিমানা ফের কারাগারে সম্রাট তাড়াইলে গ্রামীন রাস্তাটি খানাখন্দে বেহাল, ভোগান্তিতে হাজারো মানুষ 

ভারতে মানবাধিকার লঙ্ঘন বাড়ছে, কঠোর বার্তা আমেরিকার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১২ এপ্রিল, ২০২২
ভারতে মানবাধিকার লঙ্ঘন বাড়ছে, কঠোর বার্তা আমেরিকার!

ভারতে ক্রমবর্ধমান মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা নিয়ে এবার কঠোর বার্তা দিল আমেরিকা। তারা ভারতের বিরুদ্ধে এর আগে কখনও এভাবে সরাসরি মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ তোলেনি।

তিনি কূটনৈতিক ভাষায় বলেন, ভারতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা বাড়ছে, আর সে দিকে আমরা নজর রাখছি।

ব্লিঙ্কেন বলেন, ভারতের সরকার, পুলিশ এবং কারাগারের কর্মকর্তাদের হাতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা বেড়েছে। সাম্প্রতিক কিছু ঘটনা আমাদের নজরে এসেছে।

কয়েকদিন আগে মার্কিন কংগ্রেসের ডেমোক্র্যাট সদস্য ইলহান ওমারও ভারতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রসঙ্গ উত্থাপন করেন। তিনি বলেন, মোদি সরকার মুসলিমদের ওপর আর কী করলে আমরা তাদের পার্টনার ভাবা বন্ধ করব?

এর এক সপ্তাহের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে কঠোর বার্তা এলো।

মোদির সমালোচকরা বলছেন, ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে হিন্দু জাতীয়তাবাদী শাসক দল ধর্মীয় মেরুকরণকে উৎসাহিত করেছে।

মোদী ক্ষমতায় আসার পর থেকে ধর্মীয় রূপান্তর ঠেকানোর নামে ডানপন্থী হিন্দু গোষ্ঠীগুলো সংখ্যালঘুদের ওপর আক্রমণ শুরু করে। বেশ কয়েকটি রাজ্য ধর্মান্তকরণ বিরোধী আইনও পাস করেছে বা বিবেচনা করছে যা  সাংবিধানিকভাবে বিশ্বাসের স্বাধীনতার অধিকারকে চ্যালেঞ্জ করে।

২০১৯ সালে মোদী সরকার একটি নাগরিকত্ব আইন পাস করে। এ আইনের সমালোচকরা বলেন, প্রতিবেশী দেশগুলো থেকে আসা মুসলিম অভিবাসীদের বাদ দিয়ে ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ সংবিধান দুর্বল করা হয়েছে। ২০১৫ সালের আগে আফগানিস্তান, বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে পালিয়ে আসা বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, হিন্দু, জৈন, পার্সি এবং শিখদের ভারতীয় নাগরিকত্ব প্রদানের জন্য এই আইনটি তৈরি করা হয়েছিল।

একই বছর ২০১৯ সালের নির্বাচনে ফের জয়লাভের পরপরই মোদীর সরকার দেশের বাকি অংশের সাথে মুসলিম-সংখ্যাগরিষ্ঠ অঞ্চলকে সম্পূর্ণরূপে সংহত করার জন্য কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে। বিক্ষোভ দমন করতে সেখানকার অনেক রাজনৈতিক নেতাকে আটক করে এবং অনেক আধা-সামরিক পুলিশ ও সৈন্য মোতায়েন করা হয়।

মোদীর ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) সম্প্রতি কর্ণাটক রাজ্যে ক্লাসরুমে হিজাব পরা নিষিদ্ধ করেছে। কট্টরপন্থী গোষ্ঠীগুলো পরে ভারতের অন্যান্য রাজ্যেও এমন বিধিনিষেধের দাবি জানিয়েছে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: