বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৭:০৯ অপরাহ্ন

রাত পোহালেই কিশোরগঞ্জ সদর আ.লীগের সম্মেলন, নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ

মো: আল-আমীন, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০২২
২৫ বছর পর কিশোরগঞ্জ সদর আ.লীগের সম্মেলন, নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামীকাল। সম্মেলনকে ঘিরে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঝে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। জেলার পৌর শহর ইতিমধ্যে তোরণ, ব্যানার ও ফেন্টুনে আলোকিত। 

জানা যায়, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের শত শত নেতাকর্মী সম্মেলনে যোগ দেয়ার জন্য প্রতীক্ষার প্রহর গুনছে। রাত পোহালেই দীর্ঘ ২৫ বছরের প্রতীক্ষার অবসান হবে। সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ত্ব পাওয়ার উচ্ছ্বাস ও কেন্দ্রীয় নেতা-কর্মীদের বক্তব্য শুনার জন্য হাজার হাজার আওয়ামী ভক্ত কর্মীরাও এতে অংশগ্রহণ করবে।

তবে উৎসবের আমেজে খানিকটা লাগাম টেনেছে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের অপর একটি পক্ষ। তারা দাবি করেন গঠনতন্ত্র ও কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক সম্মেলন হচ্ছে না। এছাড়াও ৩৬৬ জন কাউন্সিলর গঠন নিয়েও তারা অভিযোগ করেন।

দলের একাধিক নেতাকর্মী জানান, বিগত নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে যারা বিভিন্ন সময়ে নির্বাচন করার কারণে বহিষ্কার হয়েছেন মূলতঃ তারাই এসব অমূলক খোড়া যুক্তি দাঁড় করিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাচ্ছে। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের একটি বৃহত্তম দল। এ দলে যেমন বিদ্রোহী থাকে তেমন দলের একনিষ্ঠ কর্মীও থাকে। আমাদের অতীতেও এমন ছিল। তবে সম্মেলন শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে সম্পন্ন হবে এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

কিন্তু এতো কিছুর পরেও আগামীকালের সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে প্রায় এক ডজন নেতা প্রার্থী হবেন বলে গুঞ্জণ রয়েছে। বিভিন্ন ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা জানায় ২৫ বছর পর সম্মেলন হচ্ছে এতে আমরা খুবই আনন্দিত। আমরা জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু স্লোগানে আগামীকালের সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবো।

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আতাউর রহমান জানান, যারা সম্মেলনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন ধরণের শোডাউন ও অপ্রত্যাশিত কর্মকান্ড করছেন তারা নৌকার নির্বাচনের সময়ও বিরোধীতা করেছেন। কিন্তু জনসাধারণ আওয়ামী লীগের সাথে সম্পৃক্ত থাকায় তাদের বিরোধীতা কোনো কাজে আসেনি। সম্মেলনেও তাদের বিরোধীতা ও বল প্রয়োগ কোনো কাজে আসবে না।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট এম.এ আফজল জানান, কেউ অনিয়ম করলে তাকে আমরা বারণ করতে পারি কিন্তু রাস্তায় গিয়ে প্রতিহত করতে পারি না। তাদের বিশৃঙ্খলার দায়িত্ব একান্ত তাদের। এখানে জেলা আওয়ামী লীগের কোনো সমস্যা নেই।

এবারের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. মোঃ জিল্লুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. এম.এম আফজল।

কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. মোঃ আতাউর রহমানের সভাপতিত্ত্বে এছাড়াও উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকী এমপি, সদস্য এ.বি.এম রিয়াজুল কবির কাউছার ও সাহাবুদ্দিন ফরাজী। কিশোরগঞ্জ ৬টি আসনের এমপিদের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন নাজমুল হাসান পাপন, আলহাজ্ব মোঃ আফজাল হোসেন, রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, ডাঃ সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি, নূর মোহাম্মদ।

কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, প্রচার সম্পাদক লুৎফুল আরেফীন গোলাপ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শাব্বীর আহম্মদ মানিক, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক সুলতান আহমেদ, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক বাদল রহমান, কার্যনির্বাহী সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার কামাল ও মশিউর রহমান হুমায়ুন এসময় উপস্থিত থাকবেন।

দুটি অধিবেশনের মাধ্যমে সম্মেলনটি সম্পন্ন হবে। বুধবার বিকাল ৩টায় কিশোরগঞ্জ পুরাতন স্টেডিয়ামে ১ম অধিবেশন সম্পন্ন হওয়ার পর বিকাল সাড়ে ৫টায় কিশোরগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমীতে দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2022 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: