বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষার্থী ছাড়া যে বিদ্যালয়ে সবকিছুতেই সংকট বেদখল হচ্ছে ভূমি

আলী হায়দার, কুলিয়ারচর, কিশোরগঞ্জ
  • আপডেট সময় বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
শিক্ষার্থী ছাড়া যে বিদ্যালয়ে সবকিছুতেই সংকট বেদখল হচ্ছে ভূমি

কিশোরগঞ্জ কুলিয়ারচরে ৮ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষা কর্যক্রম চলমান একমাত্র সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় “৭নং আলীরচর কাপাসাটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টিতে” নেই যাতায়াতের রাস্তা। বিদ্যালয়টিতে কোন মাঠ না থাকলেও, বিদ্যালয়ের ১২ শতাংশ ভূমি দখল হয়ে আছে। সীমানা অরক্ষিত থাকায় ১২ শতাংশ ছাড়াও দখলের পথে বিদ্যালয়ের তিন পাশের আরও বেশকিছু জায়গা। ভূমি দখল ছাড়াও শ্রেণি, শিক্ষক সংকটসহ অসংখ্য সমস্যায় জর্জরিত বিদ্যালয়টি।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিদ্যালয়টিতে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের আসা-যাওয়ার নেই নির্দিষ্ট কোনো রাস্তা। কাদামাটি পেড়িয়ে ও মানুষের বাড়িঘরের উপর দিয়ে বিদ্যালয়ে আসতে হয় শিক্ষার্থীদের। সংকট রয়েছে শ্রেণীকক্ষের, প্রাক-প্রাথমিক থেকে ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত ৯ টি শ্রেণীকক্ষ প্রয়োজন হলেও, নেই শ্রেণী সমতূল্য শ্রেণীকক্ষ। নেই পর্যাপ্ত শিক্ষক, এগারো জন শিক্ষকের পরিবর্তে শিক্ষক রয়েছে সাত জন।

অরক্ষিত রয়েছে পুরো বিদ্যালয়ের সীমানা, ফলে একটু একটু করে দখল হচ্ছে তিন পাশের ভূমি। এছাড়া স্কুলের নামের ১২ শতাংশ ভূমি দখল হয়ে ব্যক্তি মালিকানাধীন ভবন নির্মাণ হলেও, উদ্ধারের নেই কোনো তৎপরতা। বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য নেই কোনো খেলার মাঠ, নেই ছেলে-মেয়েদের জন্য আলাদা ওয়াশ ব্লক, নেই শিক্ষার্থীদের কোনো কমনরুম, প্রতি শ্রেণি কক্ষেই রয়েছে চেয়ার টেবিল সংকটসহ অসংখ্য সমস্যায় জরাজীর্ণ বিদ্যালয়টি। যেনো বিদ্যালয়টি দেখার কেউ নেই।

বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষকা নাহিদা আক্তার রুনা বলেন, বিদ্যালয়টির বর্তমানে প্রধান ও সবচেয়ে জরুরি সমস্যা হলো রাস্তা ও শিক্ষক সংকট। রাস্তা না থাকায় বিভিন্ন মানুষের বাড়ি-ঘরের উপর দিয়ে শিক্ষকদের যাতায়াত করতে হয়। ফলে বিভিন্ন সময় শিক্ষকদের মানুষের বাড়ি-ঘরের উপর দিয়ে আসতে গিয়ে বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হচ্ছে। এছাড়া শিক্ষক সংকট থাকায় শিক্ষা কার্যক্রম মারাত্মক ভাবে ব্যহত হচ্ছে।

শিক্ষার্থী ছাড়া যে বিদ্যালয়ে সবকিছুতেই সংকট বেদখল হচ্ছে ভূমি

এই বিষয়ে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি আল মামুন শ্রাবণ বলেন, এটি উপজেলার একমাত্র প্রাথমিক বিদ্যালয়, যেখানে ৮ম শ্রেনী পর্যন্ত ক্লাস খোলা রয়েছে। বিদ্যালয়ের কোন রাস্তা নেই বললেই চলে, সীমানা অরক্ষিত, বেদখল জমি, ক্লাস রুম সংকট, শিক্ষক সল্পতা, নেই কমন রুম, খেলার মাঠ । শুধু বিদ্যালয়ের দুটি ভবন আর শিক্ষার্থী ছাড়া সবকিছুই সংকট এখানে। এসকল সমস্যা সরকারি ভাবে সমাধান না করলে বিদ্যালয়টিতে শিক্ষাদান ব্যাহত হবে এবং হচ্ছে। আমি ও প্রধান শিক্ষক মহোদয় বিভিন্ন দপ্তরে যোগাযোগ করেও এগুলোর কোন সমাধান পাচ্ছি না।

এই বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ কবিরুল ইসলাম রাস্তা ও শিক্ষক সংকটের কথা স্বীকার করে বলেন, রাস্তা না থাকায় শিক্ষক সহ শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এটি সত্য কিন্তু রাস্তা নির্মাণতো আমাদের কাজ না, তারপরও বিষয়টি নিয়ে ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছি এবং শিক্ষক সংকটের বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা আছে। এছাড়া বিদ্যালয়ের ১২ শতাংশ ভূমি দখল মুক্ত করা ও ওয়াশরুম সংকট সহ অন্যান্য সমস্যাগুলো সমাধানে কাজ করছি।

Tahmina Dental Care

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2021 Onenews24bd.Com
Site design by Le Joe
%d bloggers like this: