মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১২:৫৯ অপরাহ্ন

সর্বশেষ খবর :
ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবঁধু নুর নাহারের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন কিশোরগঞ্জে ফেন্সিডিল ও গাঁজাসহ আটক দুই কমলগঞ্জে রাস্তা বন্ধ করে বেইলি সেতু সংস্কার, জন দুর্ভোগের সৃষ্টি সিরাজগঞ্জে আঞ্চলিক এসএমই পণ্য মেলা উদ্বোধন প্রভাবশালী ব্যক্তিদের অশ্লিল দৃশ্যের ভিডিও ক্লিপ উদ্ধার পাপিয়ার কাছ থেকে মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানো নিয়ে সুখবর দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেসি একাই চার গোল করলেন কমলগঞ্জে লোকনাথ বহ্মচারীর ১৮তম বার্ষিক পাদুকা উৎসব ও অষ্টপ্রহরব্যাপী হরিনাম যজ্ঞ বেলকুচিতে প্রতিজ্ঞা বহুমূখী সমিতির উদ্দ্যোগে কৃতি ছাত্র ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান কিশোরগঞ্জ কম্পিউটার সমিতি’র অভিষেক সভাপতি পলাশ সম্পাদক মাসুম

ভৈরবে ভিক্ষুকের কোলে দুইদিনের নবজাতকে রেখে পালিয়ে গেলেন মা !

হৃদয় আজাদ, ভৈরব প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৫৯৪ বার পড়া হয়েছে

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে দুই দিন বয়সী এক নবজাতক মেয়ে শিশুকে ভিক্ষুকের কাছে ফেলে রেখে পালিয়ে গেলেন এক মা। বর্তমানে শিশুটি ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ভর্তি রয়েছে। শিশুটি সুস্থ রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। তাকে দত্তক নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন অনেকে। এ ব্যাপারে ভৈরব থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে। শিুশুটিকে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে আদালতের হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজ শনিবার সকালে নবজাতকে হাসপাতাল এসে দেখে খোজ-খবর নিয়ে গেছেন ।

জানাযায়, শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সারে ৬টার দিকে ভৈরব বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় দুইদিন বয়সী এক নবজাতকসহ বাস থেকে নামেন এক নারী। পরে রাস্তার পাশে এক মহিলা ভিক্ষুকের কাছে টয়লেটের কথা বলে নবজাতককে রেখে যান তিনি। কিন্তু পরে আর ফিরে আসেননি ঐ নারী। ভিক্ষুক মহিলাটি অন্তত বিশ মিনিট অপেক্ষা করে বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় একটি ঔষধের দোকানের মালিক কাছে নবজাত শিশুটিকে নিয়ে যান। দোকান মালিক আশরাফুল ইসলাম মুকুল ভেবে পাচ্ছিলেন না কি করা যায়। তখন তিনি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে মোবাইল ফোনে অবগত করেন । পরে তাৎক্ষণিক উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুবনা ফারজানা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে নবজাত শিশুটিকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করতে বলেন।

রাত ৯টার দিকে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: বুলবুল আহম্মেদ বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় ওই দোকান মালিকের হেফাজত থেকে শিশুটিকে নিয়ে গিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন এবং বিভিন্ন পরিক্ষা-নিরিক্ষা করে শিশুটি সুস্থ আছে বলে নিশ্চিত করেন।

পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে মা ও শিশু ওয়ার্ডের ১নং বেডে ভর্তি থাকা সুমি বেগম নামের এক রোগীর মা মাজেদা খাতুন হাসপাতালের বেডে নবজাতককে দেখে কোলে তুলে নেন। তখন নবজাতকটি কান্নারত ছিল। মাজেদা খাতুনের আদরে শিশুটির কান্না থেমে যায়। খুশিতে টাকা দিয়ে প্যাকেট দুধ,ফিডার ও বিভিন্ন উপকরন কিনে আনেন এবং শিশুটিকে মায়ের আদরে তার কোলে ঘুম পাড়িয়ে রাখেন। এছাড়াও রোগী রুমা ও তার মা মাজেদা বেগম উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে নবজাতকটির দায়-দায়িত্ব নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলার পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসপাতালে মাজেদা খাতুনের কাছে আপাতত পালনের জন্য দেন ।

ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: শাহিন বলেন, বাচ্চাটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এই বিষয়ে আমরা ইতিমধ্যে থানায় একটি ডায়রি করেছি। শিুশুটিকে সমাজসেবা অধিদপ্তরে হস্থান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুবনা ফারজানা জানান, নবজাতককে হাসপাতালে গিয়ে দেখে এসেছি । আমার সাথে ৮/১০জন নবজাতকের দায়িত্ব নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। আমরা নবজাতকটিকে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে কিশোরগঞ্জ আদালতে হস্থান্তর করব । আদালতের আইনি রায়ের মাধ্যমে নবজাতকের লালন পালনের ভার সমাধান করা হবে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

© All rights reserved © 2019 Onenews24bd.Com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com